এখনো বেপরোয়া চালকরা

এই মুহূর্তে সম্পাদকীয়

খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ    দেশব্যাপী বৃহত্তর আন্দোলনের পর আইন সংস্কারসহ সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও শৃঙ্খলা ফেরাতে নানামুখী উদ্যোগ নেয়া সত্ত্বেও কিছুতেই থামছে না সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু। বেপরোয়া গতিতে সড়ক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে চালকরা।সড়ক দুর্ঘটনার এই চিত্র নিঃসন্দেহে ভয়াবহ।ঘটনাগুলো বিশ্লেষণে চালকের বেপরোয়া মনোবৃত্তির পাশাপাশি মানুষের অসচেতনতার বিষয়টিও উঠে এসেছে। আমরা মনে করি, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে চালকের বেপরোয়া ও যানবাহন চালানোর ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতামূলক মনোবৃত্তির অবসান ঘটাতে হবে। পাশাপাশি চালককে হতে হবে প্রশিক্ষিত। ফিটনেসবিহীন যানবাহন এবং মহাসড়কে স্বল্পগতির যানবাহন দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ হিসেবে শনাক্ত। এগুলো যাতে সড়কে চলাচল করতে না পারে সে ব্যাপারে নিতে হবে কঠোর উদ্যোগ। পাশাপাশি জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর কার্যক্রম চালাতে হবে। যত্রতত্র রাস্তা পারাপার না হয়ে ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারের জন্য সাধারণকে সচেতন করতে হবে।

 

 

আইন অমান্যকারীদের দৃষ্টান্তমূলক সাজা প্রদানের ক্ষেত্রে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তথা সংশ্লিষ্টদের কঠোর অবস্থানে যেতে হবে। দেশের সড়ক-মহাসড়কে যে হারে মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘায়িত হচ্ছে, তা কারো কাম্য হতে পারে না।  আমরা বলতে চাই, সড়কে মৃত্যুর মিছিলই যদি থামানো না যায়, তাহলে সরকারের ‘সড়ক অবকাঠামো উন্নয়ন’ সাফল্য জনগণের কোনো কাজেই আসতে পারে না।

এর জন্য সর্বোগ্র প্রয়োজন সড়কে প্রাণহানি রোধে বাস্তবসম্মত উদ্যোগ নেয়া। সর্বোপরি বলতে চাই, সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে এ যাবত কম কথা বলা হয়নি, লেখালেখিও কম হয়নি। বাস্তবতা হলো, সংশ্লিষ্টদের উদ্যোগ থাকা সত্ত্বেও দুর্ঘটনা কেন রোধ করা যাচ্ছে না, তা খতিয়ে দেখে দুর্ঘটনাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে তা রোধ করা জরুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *