বহুরূপী বাঁকিপুট

ভ্রমণ ও পর্যটন


নিস্তব্ধ নির্জন দ্বীপ বাঁকিপুট। সবুজ ঝাউবন, নীল সমুদ্র, কালো নৌকো আর ফাঁকা সমুদ্রসৈকতের মধ্যে মধ্যে দু-একটা লাল কাঁকড়া। বীচের কোলঘেঁষে ঝাউবনের পাখীরা ছাড়া নৈঃশব্দ ভাঙার কেউ নেই। মনোরম প্রকৃতির অজানা রূপকে খুঁজে পাবে এখানে, যা তোমার স্বপ্নের খুব কাছাকাছি।

এছাড়া কাছেপিঠে রয়েছে “দরিয়াপুর লাইটহাউজ” ও “দেশপ্রাণ ফিশিং হারবার”। আর একটা মন্দির আছে, লোকে বলে এটাই নাকি বঙ্কিমচন্দ্রের “কপালকুণ্ডলা”-র সেই মন্দির।

ব্যস্ত একঘেয়ে জীবন থেকে একটু ছুটি নিয়ে ঘুরে এসো। হাওড়া থেকে ট্রেনে কাঁথি পৌঁছে ট্যাক্সি নিয়ে চলে যাও বাঁকিপুট। ধর্মতলা থেকে কাঁথির বাসও পাওয়া যায়।

“ঝিনুক রেসিডেন্সি” – বাঁকিপুটের একমাত্র গেস্ট হাউজ। থাকা খাওয়া সবই এখানে। এসি/ নন এসি ঘরের ব্যবস্থা আছে। এছাড়া পুকুরের মাছ, কাঁকড়া-চিংড়ি, চিকেন-মটন, ঈলিশ-পাবদা-পম্ফ্রেট, ভেজ থেকে ননভেজ, ব্রেকফাস্ট থেকে ডিনার সবকিছুর সুপরিপাটি ব্যবস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *