রূপসী রমণী

সাহিত্য / কবিতা


রূপসী রমণী
———-রোকসানা সুখী
রূপসী রমণী আজ সব বাধা ভেঙে-
মিশেছে চৌচির মেদিনীর আগ্রাসী বুকে,
যুগ-যুগান্তরের খরতার খৈ ফুটা উত্তাপে মুশলধারাও-
আজ ঝুমঝুম ঘুঙুরের তোলপাড় ধ্বনি তুলে।
মুছে দিয়ে সর্ব আকাঙ্খার বাসরে গচ্ছিত কল্পনা,
একেঁ চলে অবিরাম অনাকাঙ্খিত স্বচ্ছ সবুজের বুকে সুনিপুণ আল্পনা।
চারদিক নব যৌবনে উচ্ছ্বাসিত ষোড়শী শ্যামল ছোঁয়ায় প্লাবিত।
খুটি বাঁধা নৌকায় পাল তুলে মাঝি মাল্লা,
স্বকণ্ঠে তুলে জারি-সারি-ভাটিয়ালির চিরচেনা সুপ্রিয় সুর।
পাখিরা নিমগ্ন অনুভবে নিজ নিজ বাসায় বসে নির্বিঘ্নে লাগায় ড্যাবড্যাব চাহনির নির্ঘুম পাল্লা।
কেয়া-পারুল-ছাতিও বৃষ্টি মিশ্রিত বাতাসে বেসামাল উত্তেজনায় লজ্জানত ভঙ্গির পায়চারীতে দোলে বেহিসাবি নামতায়।
নদী-নালাও থইথই উল্লাসে উপচে পরা নব রোমান্সে বেজে ওঠে যৌবনের জয়গান।
রূপসী রমণী প্রীতিডোরে স্বচ্ছতার আপ্লুত আসরে
সুমিষ্ট হাসির প্রতিযোগিতার ব্যাকুলতায় ব্যস্ত বন-বনানী।
সুদক্ষ কারুকার্যে আঁকা পল্লীপ্রীতির নিবিড় বন্ধনে রূপসী রমণী পরায় প্রেমেজর্জর শিকল।
পরম পরশের মাধবী ডোরে নবজাতকের তৃষ্ণার্ত গলার তেষ্টা মেটায় জন্মদাত্রী রূপে।
——*****——-
কুমিল্লা, বাংলাদেশ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *