সম্মানিত অধ্যাপক সৌরভ গুপ্ত

এই মুহূর্তে সারাবাংলা


৪জুন, নৈহাটি, রিমা দত্ত : “নাটক” একটি অতিপ্রাচীন বিনোদন মাধ্যম। তবে এই উন্নত তথ্যপ্রযুক্তির যুগে বর্তমান থিয়েটার দলগুলির বেহাল অবস্থা। কিছু ব্যাতিক্রমি নাট্যদল এই অসাম্য ব্যবস্থার সঙ্গে লড়ে চলেছে। তাদের মধ্যে অন্যতম একটি দল কালেন্দী ব্রাত্যজন নাট্য গোষ্ঠী। সম্প্রতি রানুছায়া মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ব্রাত্যজনের সপ্তম আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব। এই অনুষ্ঠানের উৎসব মঞ্চে সম্মান জ্ঞাপন করা হয় উদীয়মান আট জন তরুন, প্রতিভাবান নাট্যকর্মী বন্ধুদের, সৌরভ গুপ্ত তাদেরই অন্যতম একজন তরুন প্রতিভাবান নাট্যকার, নাট্য পরিচালক, নাট্যপ্রেমী মানুষ যার হাতে সম্মান তুলে দেন কালেন্দী ব্রাত্যজন নাট্যগোষ্ঠীর প্রধান তথা রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। সৌরভ ছোটোবেলা থেকেই নাটকের প্রতি ভালোবাসার জন্য প্রচুর নামী অনামী নাট্যগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজ করেছেন। বর্তমানে সৌরভ উড়িষ্যার কেন্দ্রীয় বিশ্ব বিদ্যালয়ের সাংবাদিক বিভাগের অধ্যাপক হিসাবে কর্মরত। সুদূর উড়িষ্যায় বসেও নাটকের প্রতি ভালোবাসা ও নাটকের হাতছানিকে উপেক্ষা করতে পারেননি সৌরভ গুপ্ত। তাই উড়িষ্যার কোরাপুটে বসে তার ছাত্র ছাত্রী ও কিছু মানুষজনকে নিয়ে নাটক তৈরীর আনন্দে মেতে আছেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বেশকিছু গল্পকে ওড়িয়া ভাষাতে সফল ভাবে নাট্যমঞ্চত্ব করেছেন। সৌরভের এই ভালোবাসাকে সম্মান জানাতেই এইদিনে তার হাতে সম্মান স্বারক তুলে দেন ব্রাত্য বসু। পর্ব কাগজ ও বাংলার পর্বর তরফ থেকেও অধ্যাপক সৌরভ গুপ্তের এই প্রশংসনীয় কাজের প্রতি কুর্নিশ জানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *