বঙ্কিম-ভবন গবেষণা কেন্দ্র

এই মুহূর্তে পাঁচমিশালী


২৬মে,নৈহাটি,রিমা দত্ত:আগামী ২৬ জুন সাহিত্য সম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ১৮০ তম্ জন্মবার্ষিকী । ১৮৩৮ খ্রিস্টাব্দে নৈহাটির কাঁটাল পাড়ায় তাঁর জন্ম হয়।কাঁটাল পাড়ার বাড়িতে বসেই বঙ্কিমচন্দ্র বন্দেমাতরম্ সঙ্গীত সহ তাঁর একাধিক সাহিত্য রচনা করেন।বঙ্কিমচন্দ্রের(৮ এপ্রিল ১৮৯৪) পর দীর্ঘদিন বাড়িটি অবহেলায় পড়েছিল।যদিও ১৯৩৮ খ্রীষ্টাব্দে বঙ্কিম-জন্মশতবর্ষে বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ মূল বসত বাড়ির দক্ষিনে অবস্থিত বঙ্কিমচন্দ্রের নিজের তৈরি বৈঠকখানা বাড়িটি অধিগ্রহন করে।কিন্তু কলকাতা থেকে বেশখানিকটা দূরে অবস্থিত হওয়ায় তাদের পক্ষেও এই বাড়ির যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ করা সম্ভব হচ্ছিল না।১৯৫৪ তে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের সমাজ শিক্ষা দপ্তর বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদের হাত থেকে বৈঠকখানা বাড়িটির দায়িত্ব নেয়।স্হাপিত হয় ঋষি বঙ্কিম গ্রন্থাগার ও সংগ্রহশালা।

রাজ্যসরকারের উচ্চশিক্ষা দপ্তর বৈঠকখানা বাড়িসহ মূল বসত বাড়িটি অধিগ্রহন করে বঙ্কিম-ভবন গবেষণা কেন্দ্রর নামে একটি পূর্নাঙ্গ রিসার্চ সেন্টার গড়ে তোলে।ধাপে ধাপে সংস্কার হয় ‘খন্ডহর’ -এ পরিণত হওয়া সাহিত্য সম্রাটের বসতভিটে।২০০০ সাল থেকে আবার নতুন করে প্রকাশিত হতে শুরু করে যুগান্তকারী ‘বঙ্গদর্শন’ পএিকা।সংস্কার হওয়া প্রাসাদোপম্ বসতবাড়ি,এইখানকার মিউজিয়াম্ আজ যেমন্ অন্যতম দর্শনীয় স্থান,তেমন এই গবেষণাকেন্দ্রের সমৃদ্ধ লাইব্রেরি ও আর্কাইভ -টি দেশবিদেশের গবেষকদের একান্ত নির্ভরের জায়গা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *